চোখ থেকে তাঁদের নোনা অশ্রু ঝরে না, ঝরে রক্ত।
৯ মার্চ, ২০১১ ২:০১ পূর্বাহ্ণ

অশ্রুর বদলে রক্ত ঝরা হাতে গোনা কয়েকজনের ১ জন ক্যালভিন ইনম্যান। ১৭ বছর বয়সী এই তরুণের বাড়ি যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যের নক্সভিলে।

 যখন তখন তাঁর চোখ থেকে অশ্রুর মতো রক্তের ধারা নামে। মাঝে মধ্যে চোখের সঙ্গে নাক থেকেও রক্ত ঝরে। রক্ত ঝরার স্থায়িত্ব কখনো বা ১ ঘণ্টায়ও গড়ায়। ব্যাপারটি কখনো তিনি টের পান, কখনো পান না। যখন টের পান না, তখন আশপাশের লোকজনের ছানাবড়া দৃষ্টি এ ব্যাপারে তাঁকে সচেতন করে। শুরুতে চিকিৎসকেরা ভেবেছিলেন, তাঁর বংশানুক্রমিক কোনো ত্রুটি আছে বা শরীরে কোথাও টিউমার দেখা দিয়েছে, যা এই রক্ত ঝরার নেপথ্য কারণ। কিন্তু ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েও এ ব্যাপারে তাঁরা নিশ্চিত হতে পারেননি। তবে কারণ অনুসন্ধানে এখনো চেষ্টা চলছে তাঁদের। ইনম্যান বলেন, 'আমার চোখ থেকে রক্ত ঝরা দেখে লোকজন ভাবে আমাকে ভূতে ধরেছে। বাড়িতে ও স্কুলে যখনই রক্ত ঝরে, ব্যাপারটি সাধারণত আমি টের পাই না। মাঝে মধ্যে অবশ্য চোখ জ্বালা করে। তখন টের পাই। রক্ত ঝরা শেষ হলে আমার মাথার বাঁ-পাশে প্রচণ্ড যন্ত্রণা হয়। মনে হয়ে কেউ যেন সেখানে হাতুড়ি মারছে। রাতে ঘুমাতে পারি না। কয়েকটি ঘণ্টা স্রেফ আলো নিভিয়ে পড়ে থাকি।' ইনম্যানের উদ্বিগ্ন মা টেমি মাইন্যাট বলেন, 'নিউইয়র্ক, মেমফিস ও আটলান্টা পর্যন্ত প্রায় ১৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে ছেলেকে নিয়ে গেছি। কিন্তু লাভ হয়নি। মনে হচ্ছে, এই সমস্যার কোনো সমাধান নেই তাঁদের কাছে।' মেমফিসের হ্যামিলটন আই ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ জন ফ্লেমিং বলেন, 'চোখে সংক্রমণজনিত কারণ বা শরীরে কোথাও টিউমার হলে এভাবে রক্তক্ষরণ হতে পারে। এমন কয়েকজনকে আমরা পেয়েছি। কয়েক মাস বা কয়েক বছর ধরে এভাবে চোখ থেকে রক্ত ঝরে আপনাআপনি বন্ধ হয়ে গেছে।'

পাঠকের মন্তব্য