ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসে দু দিনব্যাপী প্রযুক্তি উৎসব’
১০ জুলাই, ২০১২ ২:২৮ অপরাহ্ণ
-

তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞান শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে ১১ জুলাই থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) প্রথমবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দু দিনব্যাপী ‘ডিইউআইটিএস-স্যামসাং ক্যাম্পাস প্রযুক্তি উৎসব’।

‘আইসিটি এনাবল ক্যাম্পাস ফর বেটার এডুকেশন’ (উন্নত শিক্ষায় প্রযুক্তিনির্ভর ক্যাম্পাস) প্রতিপাদ্য নিয়ে ঢাকা ইউনিভার্সিটি আইটি সোসাইটির উদ্যোগে এ উৎসবে দেশের শীর্ষস্থানীয় ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন।

১২ জুলাই পুরস্কার বিতরণের মাধ্যমে শেষ হবে এ উৎসব। এর মডারেটরের দায়িত্ব পালন করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবগঠিত টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শফিউল আলম ভূঁইয়া।

৭ জুলাই শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার মিলনায়তনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটির সাংবাদিক সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সোসাইটির সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইমরান।

এ সম্মেলনে জানানো হয়, ১১ জুলাই সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে টিএসসি মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধন করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আআমস আরেফিন সিদ্দিক। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এ ছাড়াও অনুষ্ঠানের শুরুতে উৎসবে অংশগ্রহণকারীদের নিয়ে একটি র‌্যালি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করবে।

উৎসবের বিভিন্ন পর্বে থাকছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের প্রকল্প প্রদর্শন, গেমিং এবং কুইজ প্রতিযোগিতা, কর্মশালা, সেমিনার, তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর বিতর্ক এবং বিজনেস আইডিয়া প্রতিযোগসহ থাকছে নানা আয়োজন। এ ছাড়াও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ও মিট দ্য পারসোনালিটির আয়োজন থাকছে।

আয়োজকরা জানান, এ উৎসবে মোট ২টি সেমিনার, ২টি কর্মশালা ও একটি আলোচনা পর্ব থাকছে। আরও থাকবে ল্যাপটপ ও কম্পিউটার সার্ভিস ডেস্ক। উৎসব চলাকালে কম্পিউটার বা ল্যাপটপের সমস্যা সমাধান করা যাবে এখানে। এ আয়োজনের মাধ্যমে প্রযুক্তিনির্ভর ক্যাম্পাস গড়‍ার প্রস্তাবও রাখা হবে। আয়োজকেরা এসব তথ্য দিয়েছেন।

এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণে এ পর্যন্ত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রায় ২০টি প্রকল্প নিবন্ধন করেছে। এসব প্রকল্প থেকে সেরা তিন প্রকল্পকে পুরস্কৃত করা হবে। এ ছাড়া কুইজ প্রতিযোগিতা ও গেমিং কনটেস্টেও ঢাকা এবং বাইরের শিক্ষার্থীদের উল্লেখযোগ্য অংশগ্রহণ থাকছে।

ড. শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির জ্ঞানে সমৃদ্ধ হতে হবে। এর মাধ্যমে একটি মেধাভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলা যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটি তাদের এ দারুণ কাজ শুধু ক্যাম্পাসেই সীমাবদ্ধ রাখবে না। এটি তারা দেশব্যাপী ছড়িয়ে দেবে। এ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের হেড অব আইটি মোহাম্মদ এনামুল হক, মার্কেটিং ম্যানেজার মাহমুদ বিন কাইয়ুম এবং আইটি সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আরিফ দেওয়ান।

পাঠকের মন্তব্য