ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু
২৫ আগস্ট, ২০১২ ১১:১০ পূর্বাহ্ণ
-

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি কার্যক্রম শুরু হলো। রাত ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক আনুষ্ঠানিকভাবে অনলাইনে আবেদনপত্র বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে- আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদনপত্র পূরণ করতে পারবেন ভর্তিচ্ছুরা।
জানা গেছে, অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ফি জমা দেওয়ার পে-স্লিপ সংগ্রহ করা যাবে। ২৬ আগস্ট থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। রাষ্ট্রায়ত্ত যে কোনো ব্যাংকে আবেদনপত্রের ফি বাবদ ৩৫০ টাকা জমা দিয়ে আবেদনকারীকে অবশ্যই ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আবেদনপত্রের সঙ্গে ছবি আপলোড করে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।


এ বছর ভর্তি ফরমের মূল্য ৩০ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। গত বছর মোট ৩২০ টাকা ব্যয় হতো। ৩০০ টাকা আবেদন ফরমের মূল্য এবং ২০ টাকা ব্যাংক মাশুল। এবার ব্যাংক মাশুল অপরিবর্তিত থাকলেও ফরমের মূল্য ধরা হয়েছে ৩৩০ টাকা। এ সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, অনলাইন চার্জ বৃদ্ধির কারণে ফরমের মূল্য ৩০ টাকা বাড়ানো হয়েছে।
প্রশাসনিক ভবন সূত্রে জানা যায়, যেসব শিক্ষার্থী ২০১২ ও ২০১১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক অথবা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে, কেবল তারাই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে প্রার্থীকে অবশ্যই ২০০৭ বা এর পরবর্তী সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।


অন্যদিকে ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া কোনো শিক্ষার্থী বিভাগ পরিবর্তনের জন্য এবারের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে চাইলে তাকে সংশ্লিষ্ট বিভাগের চেয়ারম্যান বা ইনস্টিটিউটের পরিচালকের কাছ থেকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য লিখিত অনুমতি নিতে হবে।


অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া :
অনলাইনে প্রাথমিক আবেদনের জন্য ভর্তিচ্ছুকে চারটি ধাপ সম্পন্ন করতে হবে। প্রথমে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে পছন্দের ইউনিট বাছাই করতে হবে। এরপর ওয়েবেসাইটে ‘আবেদন লিংকে ক্লিক করে প্রার্থীকে উচ্চ মাধ্যমিকের রোল নম্বর, শিক্ষা বোর্ড ও পাসের সাল দিয়ে ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার রসিদ ডাউনলোড করে প্রিন্ট নিতে হবে। উচ্চ মাধ্যমিক ও মাধ্যমিকের সমমানের যে কোনোটিতে জিসিই বা বিদেশি সার্টিফিকেটধারী আবেদনকারীকে সমতা নিরূপণের জন্য প্রথমে তার প্রাথমিক ও শিক্ষা সংক্রান্ত তথ্য ও গ্রেডশিটের ফটোকপিসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিট অফিসে আবেদন করতে হবে। টাকা জমা দেওয়ার রসিদের দুটি অংশের নির্দিষ্ট স্থানে সদ্য তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংযুক্ত করে এবং রসিদের দুটি অংশেই স্বাক্ষর (আবেদনকারীর) করে দেশের যে কোনো স্থানে অবস্থিত সোনালী, জনতা, অগ্রণী বা রূপালী ব্যাংকের শাখায় টাকা জমা দিতে হবে। আবেদনকারীর টাকা জমাদানের তিন কার্যদিবসের পর টাকা জমা দেওয়ার রসিদে উল্লিখিত ব্যক্তি পরিচিতি নম্বর (পিন নম্বর) ব্যবহার করে টাকা জমা দেওয়ার রসিদে লাগানো ছবির অনুরূপ আরেকটি ছবি ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আপলোড করে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। ছবি আপলোডের পর ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্রের প্রিন্ট নিতে হবে।
আবেদন ফরম পূরণে সমস্যা হলে তথ্য জানার জন্যে যোগাযোগ করতে হবে ৯৬৬৯৯৩৪ টেলিফোন নম্বরে।

পাঠকের মন্তব্য