নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ডাকাত সন্দেহে ৬ ব্যক্তি গণধোলাইয়ের স্বীকার
৯ সেপ্টেম্বর, ২০১২ ১২:৫৪ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের গুতিয়াবো এলাকায় শনিবার রাতে ডাকাত সন্দেহে ৬ ব্যক্তিকে গণধোলাই দিয়েছেন স্থানীয় জনগণ।

রোববার সকালে তাদের রূপগঞ্জ থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

ডাকাত সন্দেহে গণধোলাইয়ের শিকার ব্যক্তিরা হলেন-মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার আব্দুল হামিদের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৪০), গোয়ালগাঁও এলাকার মিয়া প্রধানের ছেলে জাকির হোসেন (৪৪), আবুল কাশেমের ছেলে আহসান উল্লাহ (৪০),  হোসেনকি এলাকার আবুল বাশারের ছেলে সোহেল মিয়া (৩৫), নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার চরহোগলা এলাকার সের আলীর ছেলে আবুল হোসেন (৩০) ও কুমিল্লার মেঘনা ফরাজিকান্দি এলাকার সুলতান উদ্দিনের ছেলে নুরুল ইসলাম (৪২)।

এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, গুতিয়াবোসহ আশপাশের এলাকার মানুষ গত এক মাস ধরে ডাকাত আতঙ্কে রাতে পালা করে পাহারা দিয়ে আসছেন। শনিবার রাত ২টার দিকে বহিরাগত ওই ৬ জন গুতিয়াবো এলাকায় ঢুকে ডাকাতি করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন এমন সন্দেহে তাদের আটক করেন তারা। পরে গণধোলাই দিয়ে তাদের থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

এদিকে, আহত ব্যক্তিরা জানান, তারা তাদের আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। ভুলবশত ওই এলাকায় ঢুকে পড়েন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান খান বাংলানিউজকে জানান, তারা ডাকাত কিনা তা যাচাই করা হচ্ছে।  

পাঠকের মন্তব্য