তুরস্কের, “বৈরিতাপূর্ণ” বিমান রোধের প্রতিবাদ জানায় সিরিয়া
১২ অক্টোবর, ২০১২ ৬:৩৭ পূর্বাহ্ণvoa
AP photo-

তুরষ্কের প্রধানমন্ত্রী রেচেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেছেন সিরিয়াগামী যাত্রীবাহী বিমান যেটিকে তুরস্কে অবতরণ করতে বাধ্য করা হয়, সেটি প্রতিরক্ষা-সরঞ্জাম ও গোলাবারুদ বহন করছিল। বিমানটির গন্তব্য ছিল সিরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।
 
মি এরদোয়ান সাংবাদিকদের বলেছেন রাশিয়া থেকে ওই অবৈধ মাল সরবরাহ করা হয়। তিনি বিস্তারিত বলেননি কারা ওই সব দ্রব্য সরবরাহ করেছে।
 
এর আগে সিরিয়া বলেছে তুরস্ক, সিরিয়ার একটি যাত্রীবাহী বিমানকে আঙ্কারায় অবতরণ করতে যে বাধ্য করে, তা ছিল বৈরিতাপূর্ণ ও ন্যাক্কারজনক এবং তা ছিনতাই করার সামিল।
বৃহস্পতিবার সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় বলেছে বিমানটি যখন মস্কো থেকে দামেস্কে যাচ্ছিল তখন যে পিছু ধাওয়া করে বিমানটিকে অবতরণ করতে বাধ্য করা হয় তা তুরস্ক সরকারের বৈরিতাপূর্ণ নীতিরই একটা চিহ্ন। তারা তুরস্কের বিরুদ্ধে আবারও অভিযোগ করে যে তারা বিদ্রোহীদের অভয় আশ্রয় দিচ্ছে এবং সিরিয়ার অঞ্চলে বোমা বর্ষণ করেছে।
তুরস্কের সামরিক জঙ্গীজেট বুধবার রাশিয়ার কাছ থেকে সিরিয়ার বাশার আল আসাদের সরকারের কাছে অস্ত্র বহনের সন্দেহে তুর্কী রাজধানীতে বিমানটিকে অবতরণ করতে বাধ্য করে। বিমানের ক্রুর এক সদস্য বলেছেন তুর্কী কর্তৃপক্ষ বিমানটি তল্লাশির সময় তাদেরকে হাতকড়া পরিয়ে রাখে এবং মাটিতে শুয়ে রাখে।
সিরিয়ান বিমানটিকে বৃহ্পতিবার সকালে তাদের যাত্রা সম্পন্ন করতে দেওয়া হয়। তার আগে তুরস্ক তাদের কথায় বিমানটির অবৈধ মাল আটক করে।

পাঠকের মন্তব্য