চাঁদের জন্ম তাহলে পৃথিবী থেকেই
১৮ অক্টোবর, ২০১২ ১২:২১ অপরাহ্ণ
ছবিঃ চাঁদ-

চাঁদ কোনোএক সময় পৃথিবীরই অংশ ছিল।মহাজাগতিক কোনো বস্তুর সঙ্গে সংঘর্ষের পর পৃথিবীথেকে ছিটকে যাওয়া উপাদান থেকে চাঁদ গঠিত হয়েছে বলেসম্প্রতি হার্ভার্ডের দুই গবেষক দাবি করেছেন। চাঁদ সৃষ্টির প্রচলিত তত্ত্বে বলা হচ্ছিল, পৃথিবীতে আঘাত হানা মহাজাগতিক বস্তুটির উপাদান দিয়ে চাঁদের সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু হার্ভার্ডের গবেষকরা বলছেন সংর্ঘষের পর মহাজাগতিক ওই বস্তুটির উপাদান দিয়ে নয় পৃথিবীর অংশবিশেষ দিয়েই গড়ে উঠেছেচাঁদ। বুধবার খ্যাতনামা বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী ‘সায়েন্স’ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে সারা স্টুয়ার্ট ও মাতিয়া কুক দাবি করেছেন, চাঁদ পৃথিবীথেকে সৃষ্টি হয়েছে বলেই এদের গঠন ও রসায়নের মধ্যেএত মিল খুঁজে পাওয়া যায়। তাদের ব্যাখ্যা, যখন চাঁদসৃষ্টি হয় তখন পৃথিবী নিজঅক্ষে ঘুরতো অনেক দ্রুত। তখন এক দিন হতো দুই থেকে তিন ঘণ্টায়। পৃথিবীর এই অতি দ্রুত ঘুর্ণনশীলতার ফলেই মহাজাগতিক বস্তুটির সঙ্গে সংঘর্ষের পর পর্যাপ্ত পরিমাণ উপাদান পৃথিবী থেকে ছিটকে চাঁদ সৃষ্টি করতে পেরেছে। তাদের এই তত্ত্ব অনুযায়ী,পরে সূর্যকে ঘিরে পৃথিবীরকক্ষপথ ও পৃথিবীকে ঘিরে চাঁদের কক্ষপথের মিথষ্ক্রিয়ায় পৃথিবী বর্তমান আহ্নিক গতি পেয়েছে, যেখানে ২৪ ঘণ্টায়এক দিন হয়। স্টুয়ার্ট হার্ভার্ডের পৃথিবী ও গ্রহসংক্রান্ত বিজ্ঞানের অধ্যাপক। আর মাতিয়া এসইটিআই ইন্সস্টিটিউটের একজন জ্যোর্তিবিজ্ঞানী।

পাঠকের মন্তব্য