নাফিসের অধিকার রক্ষা হবে
২১ অক্টোবর, ২০১২ ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ
নাফিস-

নিউ ইয়র্কে সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে গ্রেপ্তার কাজী মোহাম্মদ রেজওয়ানুল আহসান নাফিসের ন্যায়বিচার পাওয়ার অধিকার পুরোপুরি রক্ষা করা হবে বলে আশা করে বাংলাদেশ।

ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আকরামুল কাদের শুক্রবার মার্কিন বিচার দপ্তরে আইনও বিচার মন্ত্রণালয়ের উপ-সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ব্রুস সোয়ার্টজের সাথে বৈঠকের সময় এই মন্তব্য করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের কনস্যুলার ও দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া ব্যুরো এবং বিচার বিভাগের উধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ সরকারের সন্ত্রাসবিরোধী অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন এবং কী কী অভিযোগে নাফিসকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে সে ব্যাপারে খোঁজ নেন। বিচার বিভাগ এবং স্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রদূতঅনুরোধ করেন, ব্যক্তি নাফিজের কারণে যেন যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি বিদ্বেষমূলক মনোভাব দেখানো না হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, “এ ব্যাপারে মার্কিন কর্মকর্তা বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে আশ্বস্ত করেন যে, নাফিজের কারণে বাংলাদেশি-আমেরিকানদের বিরূপ দৃষ্টিতে দেখার কোনো কারণ নেই। “তারা এই আশ্বাসও দিয়েছে যে বিচার চলাকালে নাফিসেরঅধিকার পুরোপুরি রক্ষিত হবে।” আইনজীবী নিয়োগ জেনারেল ব্রুস সোয়ার্টজ রাষ্ট্রদূত আকরামুল কাদেরকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকার ইতোমধ্যে নাফিসের জন্য একজন আইনজীবী নিয়োগ করেছে।

বাংলাদেশ মিশন নাফিসের বিষয়ে ‘কনস্যুলার একসেস’ চেয়েছে এবং তার আইনজীবীর সঙ্গে যোগাযোগের বিষয়টি বর্তমানে প্রক্রিয়াধীন বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রেরবিচার বিভাগ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে রাষ্ট্রদূত আকরামুল কাদের বিএনএন টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন,“আমরা নাফিসের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় চেয়েছি। নাফিস যদি আমাদের কাছে আইনগত সহায়তা চায় তাহলে তাকে তা দেয়া হবে।”

নাফিসের বাংলাদেশি জাতীয়তা নিশ্চিত করে রাষ্ট্রদূত বলেন, “নাফিসের পাসপোর্টের কপি আমাদের দেয়া হয়েছে। আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে তিনি বাংলাদেশেরই নাগরিক। তাই তার নাগরিক অধিকারের মধ্যে যতটা প্রাপ্য ততোটাসহায়তা দিতে আমরা বদ্ধপরিকর।

আমরা সে বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রের উপ-সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ব্রুস সোয়ার্টজকে জানিয়েছি।” নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ভবন বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনার অভিযোগে গত বুধবার ওই ভবনের সামনে থেকেই নাফিসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ও এফবিআই।

এফবিআই বলছে, ম্যানহাটানেফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকের সামনে ‘বিস্ফোরকভর্তি’ ভ্যান দাঁড় করিয়ে নাফিস পাশের মিলেনিয়াম হিল্টন হোটেলে যান। সেখান থেকে তিনি ভ্যানে রেখে আসা সেলফোনে বার বার কল দিতে থাকেন এক হাজার পাউন্ড (৪৫৪ কেজি) বিস্ফোরকে বিস্ফোরণ ঘটানোর জন্য। কিন্তু ভ্যানে সত্যিকারের বিস্ফোরক না থাকায় সেটি আর ফাটেনি বলেজানায় এফবিআই। যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে ২১ বছর বয়সী নাফিসের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্রের ব্যবহার ও জঙ্গি সংগঠন আলকায়েদাকে সহযোগিতা করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

দোষী সাব্যস্ত হলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

পাঠকের মন্তব্য