শিক্ষার্থী ভিসায় কড়াকড়ির দাবি মার্কিন সিনেটরের
২১ অক্টোবর, ২০১২ ৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ
-

নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ভবন বোমামেরে উড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনার অভিযোগে এক বাংলাদেশি যুবক গ্রেপ্তার হওয়ার পর বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিসা দেওয়ার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপের দাবি জানিয়েছেন এক সিনেটর।

সিনেটে জুডিশিয়ারি কমিটির চেয়ারম্যান ও ডেমোক্র্যাট দলীয় সিনেটর চাক শ্যুমার বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “কিছু কিছু ইউনিভার্সিটির মাধ্যমে বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা সহজে ভিসা পাচ্ছে। এর মাধ্যমেই সম্ভাব্য সন্ত্রাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের পথ খোলা থেকে যাচ্ছে।”

এ কারণে শিক্ষার্থী ভিসারনীতিমালা আরো কঠোর করতে অবিলম্বে একটি বিল পাশের জন্য কংগ্রেস সদস্যদের প্রতি আহবান জানান তিনি। গ্রেপ্তার নাফিসকে ভিসা দেয়া প্রসঙ্গে এই সিনেটর বলেন, “মিসৌরি ইউনিভার্সিটি নাফিসের ভিসার আবেদনে সুপারিশ করেকোনো অন্যায় করেনি বলে যারা যুক্তি দেখাচ্ছেন- তারা এ বিষয়টি খতিয়ে দেখেন না যে, স্বল্প সময়ের মধ্যেই নাফিসকে নিউইয়র্কে বদলির অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এভাবেই নাফিসের ‘পরিকল্পনা’ বাস্তবায়নের পথ সুগম হয়েছিল বলে মন্তব্য করেন সিনেটর। যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট বলছে, ২০১০-২০১১ অর্থ বছরে যুক্তরাষ্ট্রের কলেজ-ইউনিভার্সিটিতে বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ছিল ৭ লাখ ২৩ হাজার ২৭৭ জনের বেশি।

এসবছাত্র-ছাত্রী প্রতি বছর বেতনসহ অন্যান্য খাতে ২০ বিলিয়ন ডলারের বেশি ব্যয় করেন। আর এদের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ আসেন এশিয়া থেকে, যার শীর্ষে রয়েছে ভারত ও চীন।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশিছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ৩ হাজারের বেশি নয় বলে স্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তারা জানিয়েছে। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে সন্ত্রাসী হামলার পর স্টেট ডিপার্টমেন্ট যে ২৫ দেশকেকালো তালিকাভুক্ত করেছিল,তাতে বাংলাদেশও ছিল। অনেকচেষ্টার পর ২০০৫ সালে বাংলাদেশের নাম বাদ দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

পাঠকের মন্তব্য